শাহবাগ রণক্ষেত্র, পুলিশ বক্সে আগুন

সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা সংস্কারের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেওয়া আন্দোলনকারীদের উপর পুলিশ লাঠিপেটা, কাঁদানে গ্যাস ও জলকামান নিক্ষেপ করেছে। আজ রোববার রাতে আন্দলনরত শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করতে এই ঘটনা ঘটে।

এদিকে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, জলকামান নিক্ষেপ, টিয়ারশেলের গুলিতে শাহবাগ এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। ছত্রভঙ্গ করে দেয়ায় শাহবাগ পুলিশ বক্সে আগুন ধরিয়ে দেয় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে আটক করেছে। তাদের থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ অনুযায়ী, পুলিশের লাঠিপেটা ও কাঁদানে গ্যাসের কারণে আন্দোলনকারীরা শাহবাগ থেকে সরে এসে চারুকলা অনুষদের সামনে অবস্থান নিয়েছেন। সেখানে কাঁদানে গ্যাসের থেকে রক্ষা পেকে আন্দোলনকারীরা আগুন জ্বালিয়েছেন।

এর আগে, দুপুর দেড়টা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল থেকে মিছিলে মিছিলে কর্মসূচীস্থলে আসতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি কোটা বিলুপ্ত নয়, যৌক্তিক সংস্কার।

প্রসঙ্গত, কোটা পদ্ধতির সংস্কারের দাবিতে বেশ কিছুদিন ধরে আন্দোলন চলছে। ওই আন্দোলনের অংশ হিসেবে ১৪ মার্চ ৫ দফা দাবি নিয়ে স্মারকলিপি দিতে সচিবালয় অভিমুখে যেতে চাইলে পুলিশি ধরপাকড় ও আটকের শিকার হন তিন আন্দোলনকারী। এরপর আরও বেশ কয়েকটি কর্মসূচি পালন করেন আন্দোলনকারীরা।

আন্দোলনকারীদের ৫ দফা দাবি- সরকারি নিয়োগে কোটার পরিমাণ ৫৬ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ করা, কোটার যোগ্য প্রার্থী না পেলে শূন্যপদে মেধায় নিয়োগ, কোটায় কোনো ধরনের বিশেষ নিয়োগ পরীক্ষা না নেয়া, সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে অভিন্ন বয়সসীমা, নিয়োগপরীক্ষায় একাধিকবার কোটার সুবিধা ব্যবহার না করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *