আমি আবারও বলছি, ফিরে যাও!

আমি আবারও বলছি, ফিরে যাও! নেপালে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা বিমানকে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোল টাওয়ার থেকে বিমানটি অবতরণের আগে এমনটাই বলা হয়েছিল। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

ওই নির্দেশনার কয়েক মিনিট পরই চার ক্রু ও ৬৭ যাত্রীসহ ৭১ আরোহী নিয়ে রানওয়ের পাশে একটি ফুটবল খেলার মাঠে বিধ্বস্ত হয়। এ ঘটনায় ৫১ জন নিহত হয়। আর বাকি ২০ জনকে নেপালের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

ইউএস-বাংলার বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার আগে এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে পাইলটের যে কথোপকথনের অডিও প্রকাশ পেয়েছে সেখানেই এমনটা জানা গেছে। বিমান অবতরণের আগ মুহূর্তে কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে পাইলটের ধোঁয়াশাপূর্ণ কথা হয়। একটি মাত্র রানওয়ের ওই বিমানবন্দরে কোন দিক দিয়ে বিমান অবতরণ করবে সেটি নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বের ঘটনায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সোমবারের অডিও বার্তায় শোনা যায়, পাইলট উত্তর না দক্ষিণ কোন দিক দিয়ে অবতরণ করবে সেটি নিয়ে নিয়ন্ত্রণ টাওয়ারের সঙ্গে তার দ্বিধামূলক কথোপকথন শোনা যায়। বিমান অবতরণে ঠিক আগ মুহূর্তে পাইলট জানতে চান, আমরা কী এখন অবতরণ করতে পারি?

কিছুক্ষণ পর নিয়ন্ত্রণ টাওয়ার থেকে আওয়াজ ভেসে আসে। সেখানে পাইলটকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়, আমি আবারও বলছি, ফিরে যাও! এর কিছুক্ষণ পরই রানওয়ের কাছে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। এদিকে আরও একটি আলাদা রেডিও কথোপকথনে নেপালি এক পাইলটের সঙ্গে নিয়ন্ত্রণ টাওয়ারের ভুল বার্তা চালাচালি হয়।

পেছন থেকে ভেসে আসা এক ব্যক্তির কণ্ঠস্বরে শোনা যায়, এটা দেখে মনে হচ্ছে তারা মারাত্মক রকম অগোছালো। কিন্তু এটি কোনো পাইলট বা নিয়ন্ত্রণ টাওয়ারের কর্মকর্তার কণ্ঠস্বর কিনা সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আরেক ব্যক্তিকে এসময় বলতে শোনা যায়, মনে হচ্ছে তারা দ্বিধান্বিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *