শুভ’র টানে ঢাকায় চলে আসলো নোয়াখালীর অন্তরা

জনপ্রিয় ধারাবাহিক ব্যাচেলর পয়েন্ট। বর্তমানে এর সিজন থ্রি চলছে। এই সিজন থ্রির কয়েকটি এপিসোডের শু’টিং হয় নোয়াখালীতে। ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকের নোয়াখালী পর্বগুলো বেশ জমিয়ে দিয়েছেন অন্তরা আর জাকির। এই দুটো নতুন চরিত্র নোয়াখালীকে পর্বকে তুমু’লভাবে আলোচনায় নিয়ে আসে।ম’জার বিষয় হলো অন্তরা চরিত্রটি নোয়াখালীর হলেও এবার ঢাকার পর্বেও দেখা যাবে অন্তরাকে।

কাবিলার বন্ধু শুভ, আপনারা যারা ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকটি দেখছেন তারা নিশ্চই জানেন এই শুভ বরিশালের হলেও একটু কিন্তু বো’কা, নোয়াখালী গিয়ে অন্তরার প্রেমে পড়ে যায় এই শুভ। অন্তরাকে এমনভাবে পছন্দ করে ফেলে যে, সেখান থেকে যেন আর কোনোভাবেই ফেরার পথ থাকে না শুভ’র। অবশ্য শুভকে অন্তরাকে একটু না’চা’নি দেওয়ার চেষ্টা করে। নোয়াখালী পর্বতে দেখা যায় শুভ অন্তরার প্রেমে পা’গল হয়ে তার স’ঙ্গে আ’লাপ করতে যায়। আর এখানেই বাধা হয়ে দাঁড়ায় কাবিলা। কাবিলা চায় না নোয়াখালীর এই অন্তরার সঙ্গে তার বন্ধু শুভর প্রেম হোক। শুভকে কাবিলা নানাভাবে বোঝাতে চেষ্টা করে যে অন্তরা ভালো মেয়ে নয়। অন্তরা ছেলেদেরকে নাচায়, নোয়াখালীর অনেক ছেলেই না’চিয়ে ছেড়েছে এই অন্তরা। শুভ এমনভাবে প্রেমে পড়ে যে মাঝে মধ্যে রাত বিরেতে অন্তরার বাড়ির আশেপাশে ঘোরাঘুরি করে।

যাহোক, কাবিলা শুভকে শেষ পর্যন্ত অন্তরার সাথে আলাপ করিয়ে দেয়। আর শুভ চু’টিয়ে অন্তরার সঙ্গে দেখা করে আলাপ চালাতে থাকে। এক সময় তো ঢাকাতে ফিরতেই হবে। কাবিলা, পাশা ভাই, শুভরা ঢাকায় ফিরে আসে। কিন্তু শুভর মন পড়ে থাকে নোয়াখালীতে। সারাক্ষণ মনের ভেতর অন্তরা অন্তরা। সারাদিন ফেসবুক মেসেঞ্জারে অন্তরার সঙ্গে চ্যা’টিং চলতেই থাকে। এভাবেই অন্তরা একসময় শুভর প্রতি আগ্রহী হয়ে ঢাকায় চলে আসে। কিন্তু প্রশ্ন হলো ঢাকায় কীভাবে এলো অন্তরা?

এ বিষয়ে কাজল আরেফিন অমি বলেন, অন্তরার স’ঙ্গে শুভর সখ্য তৈরি হয়ে যায়। যার ফলে তাদের টে’ক্সটিং-মেসেজিং চলতেই থাকে। এক পর্যায়ে অন্তরা ঢাকায় আসার সি’দ্ধান্ত নেন। অবশেষে ঢাকায় আসেন অন্তরা দেখা করেন শুভর সঙ্গে। ঢাকায় অন্তরা তার দুলাভাইয়ের বাসাতে ওঠে বলে জানানেলন অমি। ব্যাচেলর পয়েন্টে শুভ চরিত্রে অভিনয় করছেন মিশু সাব্বির আর অন্তরা চরিত্রে অভিনয় করছেন ফারিয়া শাহরিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *